বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ০৫:২৬ অপরাহ্ন

সোনার অলংকার ডিজাইনে বৈচিত্র্য খোঁজেন তরুণীরা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৫৬ বার পঠিত

সোনার অলংকারে নারীদের আগ্রহ ঐতিহ্যগতভাবেই। তবে বর্তমানে ফ্যাশন সচেতন তরুণীরা পোশাক ও অলংকার বাছাইয়ে অনেক বেশি সচেতন। তাঁরা পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে গয়না পরতে চান। আর তাই সোনার অলংকারে বৈচিত্র্য খুঁজে বেড়ান।

ধানমণ্ডির একটি বেসরকারি কলেজের ছাত্রী এশা বলেন, ‘সোনার অলংকার ব্যবহারে আমার আগ্রহ আছে। তবে প্রয়োজন অনুযায়ী বৈচিত্র্য না থাকায় অনেক ক্ষেত্রে ইমিটেশনসহ বিকল্প বিভিন্ন গয়না ব্যবহার করি। শুধু বিয়ের অনুষ্ঠানেই সোনার অলংকার প্রাধান্য দিই।’

বাঙালির নানা উত্সব যেমন পহেলা ফাল্গুন, পহেলা বৈশাখ, ভালোবাসা দিবসসহ আরো কিছু উত্সবে তরুণীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। আর এসব উত্সবে পোশাকের সঙ্গে পরিধানের ক্ষেত্রে ইমিটেশনের অলংকারে বেশি প্রাধান্য দেন অনেকে। এর কারণ হিসেবে তরুণীরা বলছেন, সোনার ঊর্ধ্বমুখী দাম, ডিজাইনের অভাব, কালারের অভাব, ভারী ওজন ইত্যাদি।

এ ব্যাপারে কথা বলতে চাইলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হুমায়রা বলেন, ‘সোনার অলংকার সবাই পরতে ভালোবাসে, যেমন দৈনিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে হালকা ওজনের সোনার অলংকার অনেক ভালো। তবে আমার মতে বিবাহিত মহিলাদের সোনার অলংকার বেশি মানায়।’

বর্তমানে সোনা ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের অলংকার পাওয়া যায়। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে জার্মান সিলভার, কুন্দন জুয়েলারি, জয়পুরি জুয়েলারি, হাতের তৈরি জুয়েলারি, ট্যাসেল জুয়েলারি ইত্যাদি।

সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নিশি বলেন, ‘আমার কাছে সোনার অলংকার পরতে বেশি ভালো লাগে, কারণ অন্য অলংকার পরলে কান পেকে যায়, তা ছাড়া অন্য অলংকারগুলো খুব সহজেই নষ্ট হয়ে যায়।’

বিক্রেতারা বলছেন, বড় উত্সবগুলোতে সোনা বিক্রি অনেক বেশি থাকে। ধানমণ্ডির সীমান্ত স্কয়ার মার্কেটের জুয়েলারি দোকানের মালিক রাহাত বলেন, ঈদ এবং পূজায় সোনার অলংকার বেশি বিক্রি হয়ে থাকে। আর ক্রেতা হিসেবে মধ্য বয়স্ক নারীদের বেশি দেখা যায়। তিনি বলেন, তরুণীদের সোনার অলংকার কিনতে খুব কমই দেখা যায়।

যদিও দৈনন্দিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে এখনো হালকা ওজনের সোনার অলংকারই তরুণীদের পছন্দ। তাঁরা সাধারণত কানের দুল, নাকফুল, গলার চেইন পরতে পছন্দ করেন। বর্তমানে অনেক জুয়েলারি দোকানে কম দামে এবং বিভিন্ন ডিজাইনের সোনার অলংকার বিক্রি হয়। বৈচিত্র্য আর স্বল্প দামের কারণে তরুণীদের কাছে এই ধরনের অলংকারের চাহিদা অনেক বেশি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত পজেটিভ নিউজ ২৪ বিডি ২০১৯।  
Theme Dwonload From BanglaThemes.Com
themesba-lates1749691102